ঢাকা থেকে দুই মাইক্রবাসে ওমান ফেরত ১৭জন ওসমানীনগরে

প্রকাশিত: ১০:১৩ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৫, ২০২০

ঢাকা থেকে দুই মাইক্রবাসে ওমান ফেরত ১৭জন ওসমানীনগরে

অন্তরা চক্রবর্তীঃঃ
করোনা ভাইরাসের কারণে চলমান লকডাউনের মধ্যেও দুই দিন আগে একটি বাসে সিলেটে ৩৯ জন যাত্রী আসার পরও দুই মাইক্রবাসে করে ওমান ফেরত ১৭ প্রবাসী সিলেটের উদ্যেশ্যে আসলে শেরপুর টোল প্লাজা থেকে তাদের হোম কোয়ারেন্টাইনে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

 

লকডাউন পরিস্থিতে ঢাকা এয়ারপোর্ট থেকে শেরপুর পর্যন্ত দু’টি মিনিবাস নিয়ে ১৭জন যাত্রী কী করে ওসমানীনগরে এসে পৌঁছালেন এ নিয়ে চলছে আলোচনা সমালোচনা। জানা যায়, শনিবার দুপুর দেড়টার দিকে সিলেট জেলার প্রবেশমুখ ওসমানীনগর উপজেলার শেরপুর টোল প্লাজা নামক স্থানে দু’টি মিনিবাস (নং-ঢাকা মেট্রো চ-১৯-১৯৮৮ এবং ঢাকা মেট্রো চ -১৯-৭১০৯) আটক করে মিনিবাস থেকে ১৭ জন ওমান ফেরত যাত্রীকে নামায় পুলিশ।

 

যাত্রীরা পুলিশকে জানান, ওমানে তারা অবৈধ অবস্থায় ছিলেন। তাই ওমান সরকার তাদের দেশে পাঠিয়েছে। একটি বিশেষ বিমানে ওমান থেকে ২৮৮ প্রবাসী গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যার পর ঢাকায় এসে পৌঁছান। এরপর শনিবার সকালে সিলেট ও সুনামগঞ্জের উক্ত ১৭জন প্রবাসী দুটি মিনিবাসে করে সিলেটের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন।

 

উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে তাদের স্ব স্ব থানায় পাঠানো হয়েছে। সেখান থেকে তাদের প্রশাসনের মাধ্যমে বাড়িতে হোম কোয়ারেইনটাইনে পাঠানো হবে বলে জানায় পুলিশ।

 

আগত প্রবাসী হলেন-সিলেট জেলার বালাগঞ্জ উপজেলার বানিগাঁও গ্রামের হাফিজ উল্যার পুত্র কাছিম আলী (৩৩), খারমাপুর গ্রামের মৃত আব্দুল লতিবের পুত্র আছলাম মিয়া (৩২), ইলাশপুর গ্রামের আব্দুল খালেকের পুত্র দয়াল আহমদ (৩৫), গোয়াইনঘাট থানার গুরুকুচি গ্রামের বশির আহমদের পুত্র জিয়াউর রহমান (২৮), চরেরগ্রাম গ্রামের মোহাম্মদ আলীর পুত্র বদরুল আলম (২৭),জকিগঞ্জ থানার হুটারগ্রাম গ্রামের মঈনুল হকের পুত্র বাবুল আহমদ (৩১)।

 

সুনামগঞ্জ জেলার দোয়ারাবাজার থানার কাহিনগর গ্রামের আকরাম আলীর পুত্র দেলোয়ার হোসেন (২৯), একই জেলার ছাতক থানার দীকনা চাকনপাড় গ্রামের বিরাই মিয়ার পুত্র শাহাব উদ্দিন (৩২), থানার কটালপুর গ্রামের তেরাব আলীর পুত্র আনছার আলী (২৪) তেসনি গ্রামের আরশ আলীর পুত্র সুহেল আহমদ (৩৩), দক্ষিণ খুরমা গ্রামের সুন্দর আলীর পুত্র নবী হোসেন (৩৪), রায় মত্তাশপুর গ্রামের জামিল হোসেনের পুত্র মারুফ আহমদ (২২), দোয়ারাবাজার থানার কাহিরনগর গ্রামের ফিরোজ আলীর পুত্র ছাইদ আলী (২৪), মোহব্বতপুর গ্রামের বসন্ত মোহন সিংহ এর পুত্র অরুন চন্দ্র (৩৭), জামাল পুর থানার বনশ্রীপুর গ্রামের মৃত মজর আলীর পুত্র আব্দুল হাফিজ (৩০), বীর মাদাসারা গ্রামের মনু মন্ডলের পুত্র মোতালেব (৩৭), দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার মিটাকই গ্রামের আবুল হোসেনের পুত্র জুবায়ের আহমদ (২০)।

 

ওসমানীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ রাশেদ মোবারক বলেন, ‘শেরপুর চেকপোস্টে ১৭জন প্রবাসীকে আটক করা হয়। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে তাদের স্ব স্ব থানায় পাঠানো হয়েছে। সেখান থেকে তাদের প্রশাসনের মাধ্যমে বাড়িতে হোম কোয়ারেইনটাইনে পাঠানো হবে।

Spread the love

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

আর্কাইভ

July 2024
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031