ছাতকে রাস্তার উপর বাড়ির ফটক নির্মাণ ৯ গ্রামবাসীর চলাচলে প্রতিবন্ধকতা

প্রকাশিত: ৬:৩৫ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৩, ২০২২

ছাতকে রাস্তার উপর বাড়ির ফটক নির্মাণ ৯ গ্রামবাসীর চলাচলে প্রতিবন্ধকতা
Spread the love

৪০ Views

প্রতিনিধি/ছাতকঃঃ
ছাতকে সরকারী ভুমি দখলে নিয়ে দেয়াল এবং গ্রামের রাস্তার উপর বাড়ির ফটক নির্মাণ করে গ্রামবাসীর চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছে একটি প্রভাবশালী মহল। ফলে এলাকার ৯টি গ্রামের মানুষের সহজ চলাচলে সৃষ্টি করা হয়েছে প্রতিবন্ধকতা। এ নিয়ে এলাকায় চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছে। দেয়াল ভেঙ্গে সরকারী ভুমি ছেড়ে দেয়ার নির্দেশনা থাকলেও অদৃশ্য ক্ষমতা বলে তা অমান্য করে যাচ্ছে এ প্রভাবশালী মহল।

 

 

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার দোলারবাজার ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর গ্রাামের বাসিন্দা যুক্তরাজ্য প্রবাসী মাহমুদ আলী তার নিজ গ্রাম সহ আশপাশ গ্রামের মানুষের যাতায়াতের সুবিধার জন্য ভুমি ক্রয় করে নিজ অর্থায়নে প্রায় দেড় হাজার ফুট দীর্ঘ একটি রাস্তা নির্মাণ করেন। রাস্তা সম্পন্ন করতে মাকুন্দা খালের উপর প্রায় অর্ধকোটি টাকা ব্যয়ে একটি ব্রীজও নির্মাণ করেন তিনি। রাস্তার উত্তরাংশে নিজের জমি না থাকায় তার ভাই আহমদ আলীর কাছ থেকে ২০০৮ ইং সনে ৪৮৩৮ নং দলিলে জাহিদপুর মৌজার ৫০৫৮ দাগের ২২ শতক ভুমিও রাস্তার জন্য ক্রয় করেন মাহমুদ আলী।

 

 

ইতি মধ্যেই প্রায় দেড় হাজার ফুট রাস্তা ও মাকুন্দা খালের উপর একটি ব্রীজ নির্মাণ কাজ সমাপ্ত করা হয়েছে। বাকী প্রায় দেড় শ’ ফুট রাস্তার কাজ শেষ হলে ইউনিয়ন ও উপজেলা সদরের সাথে ৮-৯টি গ্রামের মানুষের সহজ যোগাযোগ সৃষ্টি হবে। কিন্তু এতে বাধা হয়ে দাঁড়ায় আহমদ আলী পক্ষের লোকজন। সম্প্রতি আহমদ আলীর পুত্র আব্দুল নুর, আব্দুস সোবহান, সেলিম মিয়া সহ লোকজন আহমদ আলীর বিক্রিত ভুমিসহ সরকারি ভুমি দখলে নিয়ে দেয়াল নির্মাণ করে রাস্তার উপর বাড়ির অপ্রয়োজনীয় একটি ফটক স্থাপন করে নির্মাণ কাজে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে রাখে।

 

 

এ নিয়ে এরাকায় একাধিক সালিশ-বেঠক হলেও কোন সুরাহা হয়নি। গোবিন্দগঞ্জ-লামা রসুলগঞ্জ সড়ক থেকে মোহাম্মদপুর গ্রামের ভিতর দিয়ে চলে আসা রাস্তার পূর্বাংশে প্রায় দেড় শ’ ফুট পরিমাণ সড়ক নির্মাণে আব্দুন নুর ও তার সহযোগীরা বাধা দেয়ায় গ্রামের সহজ যাতায়াত ব্যবস্থা আটকে পড়ে। এদিকে সরকারী ভুমি দখল করে দেয়াল নির্মাণের অভিযোগে ২৮ অক্টোবর ছাতকের সহকারী কমিশনার (ভুমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ইসলাম উদ্দিন ও ছাতক থানার অফিসার ইনচার্জ মাহবুবুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ভুমি পরিমাপের মাধ্যমে সরকারী ভুমি দখলের সত্যতা পান।

 

 

এ সময় ভুমির সীমানা নির্ধারণ করে লাল পতাকা টানিয়ে ১৫ দিনের মধ্যে দেয়াল সহ স্থাপনা ভেঙ্গে সরকারী ভুমি দখল মুক্ত করার নির্দেশ দেন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ইসলাম উদ্দিন। গ্রামের ওয়াহিদ উল্লাহ ও আমিরুল ইসলাম শুকুর জানান, নিজ গ্রাম সহ এলাকার উন্নয়নে যুক্তরাজ্য প্রবাসী মাহমুদ আলীর ব্যাপক অবদান রয়েছে। এলাকার উন্নয়ণে নিজের ভুমির উপর দিয়ে তিনি ব্রীজ সহ রাস্তা নির্মাণ করেছেন।

 

 

এরাকার কয়েকটি রাস্তার সাথে সংযোগ সৃষ্টিকারী এ রাস্তাটি সম্পন্ন হলে মোহাম্মদপুর, বুরাইয়া, তালুপাঠ, নরসিংপুর, আলমপুর, গোপিনাথপুর, জাহিদপুর, ভাওয়াল, রামপুরসহ বেশ কয়েকটি গ্রামের মানুষ ইউনিয়ন ও উপজেলা সদরে সহজে যাতায়াত করতে পারবে। শুধু প্রতিহিংসার কারনে অন্যায়ভাবে রাস্তার কাজ সমাপ্ত করতে দিচ্ছে না প্রতিপক্ষরা। অন্য একটি রাস্তার সংযোগ স্থলে আব্দুন নূর গংদের বাড়ি সংলগ্ন বিক্রিত ভুমিতে অপ্রয়োজনীয় ফটক এবং সরকারী ভুমি দখলে নিয়ে দেয়াল নির্মাণ করে রেখেছে। এ ব্যাপারে আব্দুন নূর তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সঠিক নয় বলে জানান। সরকারী ভুমি দখল করে দেয়াল নির্মাণের ব্যাপারে সহকারী কমিশনার(ভুমি) ও নির্বাহী ম্যাজেষ্ট্রেট ইসলাম উদ্দিন জানান, সরকারী ভুমি দখল মুক্ত করতে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। দ্রুতই উচ্ছেদ করে সরকারী ভুমি উদ্ধার করা হবে।


Spread the love

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

Follow us

আর্কাইভ

November 2022
M T W T F S S
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
282930