চমক আসছে তৃণমূল বিএনপিতে, প্রেস সচিবের পদত্যাগ

প্রকাশিত: ২:২৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২৩

লন্ডন বাংলা ডেস্কঃঃ

তৃণমুল বিএনপির চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) অন্তরা সেলিমা হুদার প্রেস সচিব পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন তারেক হোসেন। দীর্ঘদিন থেকে তিনি প্রয়াত ব্যারিস্টার নাজমুল হুদারও প্রেস সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। এদিকে দলটিতে যোগ দিচ্ছেন বিএনপির সাবেক দুই নেতা তৈমুর আলম খন্দকার ও সমশের মবিন চৌধুরী। চমক হিসেবে তারা তৃণমূল বিএনপির শীর্ষ নেতৃত্বে আসছেন বলে জানা গেছে।

 

 

তৃণমূল বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানকে দেওয়া প্রেস সচিব তারেক হোসেন তার পদত্যাগপত্রে উল্লেখ করেছেন, আপনাকে দলের চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) পদে নিয়োগ প্রদানের পরে, আপনি আমাকে আপনার ব্যক্তিগত প্রেস সচিব হিসাবে নিয়োগ প্রদান করেছিলেন। কিন্তু আমার ব্যবসায়িক ব্যস্ততার কারণে আপনার দেওয়া পদটির সঠিকভাবে দায়িত্ব নিয়ে পালন করতে আমি ব্যর্থ হচ্ছি। আমি মনে করছি আমার কারণে আপনার এবং দলের ক্ষতি হচ্ছে। আমার দায়িত্ব সঠিকভাবে পরিচালনা না করতে পারায় আমি বিশেষভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি। অতএব, আমার পদটির দায়িত্ব অন্য কাউকে প্রদান করে আপনার ও দলের কার্যক্রম সুন্দর ও সুষ্ঠভাবে পরিচালনা করতে বিশেষ ভাবে অনুরোধ করছি।

 

 

তারেক হোসেন আমাদের সময়কে বলেন, ‘আমি নানা কারণে তৃণমূল বিএনপির সঙ্গে সম্পৃক্ত নেই। গত ১৫ সেপ্টেম্বর আনুষ্ঠানিকভাবে পদত্যাগপত্র দিয়েছি।’ এদিকে বিএনপির সাবেক দুই নেতার তৃণমূল বিএনপিতে যোগ দিতে যাওয়ার বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন দলটির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব শেখ হাবিবুর রহমান। বিষয়টি অস্বীকার করেননি তৈমুর আলম খন্দকারও। তৃণমূল বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব শেখ হাবিবুর রহমান জানান, শুধু সমশের মবিন বা তৈমুর আলম খন্দকারই নন, বিএনপির সাবেক নেতাদের আরও অনেকে তাদের দলে যোগ দেবেন।

 

 

 

১৯ সেপ্টেম্বর (মঙ্গলবার) ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে দলের কাউন্সিল হবে। তৃণমূল বিএনপি নির্বাচন কমিশনে (ইসি) নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলোর একটি। দলটির প্রতীক সোনালি আঁশ। ইসিতে নিবন্ধিত হওয়ায় আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিজেদের প্রতীকে ভোট করতে পারবে দলটি। আগামী ডিসেম্বরের শেষে বা আগামী বছরের জানুয়ারিতে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তৃণমূল বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা নাজমুল হুদা। তিনি ১৯৯১ ও ২০০১ সালে দুই দফায় খালেদা জিয়ার সরকারে মন্ত্রী ছিলেন। তবে ২০১২ সালে বিএনপির সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করে বিএনএফ নামে নতুন দল গঠন করেন। পরে বাংলাদেশ ন্যাশনাল অ্যালায়েন্স (বিএনএ) এবং বাংলাদেশ মানবাধিকার পার্টি (বিএমপি) নামে দুটি নতুন রাজনৈতিক দলও গঠন করেন নাজমুল হুদা। এরপর ‘তৃণমূল বিএনপি’ গঠন করেন তিনি।

 

 

 

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে তৃণমূল বিএনপি নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধনের জন্য আবেদন করে। কমিশন তখন তাদের নিবন্ধন দেয়নি। পরে দলটি আদালতের দ্বারস্থ হয়। উচ্চ আদালতের নির্দেশে গত ফেব্রুয়ারিতে তৃণমূল বিএনপিকে নিবন্ধন দেয় ইসি। নিবন্ধন পাওয়ার কয়েক দিনের মাথায় নাজমুল হুদা মারা যান। এখন দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন নাজমুল হুদার মেয়ে অন্তরা সেলিমা হুদা।

Spread the love

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

আর্কাইভ

July 2024
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031