ওসমানীনগরের উমরপুর ইউনিয়নে উন্নয়নের ছোঁয়া

প্রকাশিত: ৯:৩৭ অপরাহ্ণ, জুন ২৩, ২০২০

ওসমানীনগরের উমরপুর ইউনিয়নে উন্নয়নের ছোঁয়া
Spread the love

Views

অন্তরা চক্রবর্তীঃঃ
২০১৬ সালে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ওসমানীনগর উপজেলার আটটি ইউনিয়নের মধ্যে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতিক নিয়ে একমাত্র তিনিই বিজয়ী হয়েছিলেন। নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে মডেল ইউনিয়নে গড়ে তুলতে কাজ করে যাচ্ছেন ওসমানীনগরের উমরপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া।

 

বিগত চার বছরে ইউনিয়নের জনগনের সেবাসহ নিরলস উন্নয়ন কর্মকান্ডে ফলে ইতিমধ্যে তিনি স্থান করে নিয়েছেন সাধারণ মানুষের হৃদয়ে। জনগণকে দেয়া নির্বাচনি প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করতে দিন-রাত কাজ করে অক্লান্ত পরিশ্রমের ফলে বর্তমানে উমরপুর ইউনিয়নের পাল্টে গেছে সামগ্রিক দৃশ্যপট। অবহেলিত এই জনপদের বিভিন্ন গ্রাম-মহল্লায় লেগেছে উন্নয়নের ছোঁয়া। অধিকাংশ কাঁচা রাস্তা হয়েছে পাকা ও আধা পাকা।

 

বর্ষাকালে যে সকল রাস্তায় চলাচল করা অনেকটা অসম্ভব ছিলো সেগুলোতে পড়েছে ইট আর বালু। এছাড়া চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়ার একান্ত প্রচেষ্ঠায় এলজিইডির অধিনে উমরপুর ইউনিয়নের প্রায় ৩৫ কি:মি: নতুন পুরাতন পাকা রাস্তা সংস্কার কাজের উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের তত্বাবধানে ইউনিয়নের জনগুরুত্বপূর্ন স্থানে নির্মিত হয়ে প্রায় চারটি ব্রিজ। সরকারের নির্ধারিত বরাদ্ধ ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডে সমহারে বন্টন করে সদস্যদের সমন্বয়ে অব্যাহত রেখেছেন উন্নয়নের কাজ।

 

একজন ব্রিটিশ নাগরিক হওয়ার পরও চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে একদিনের জন্য তিনি প্রবাসে না গিয়ে দিন রাত ছুটে চলছেন উন্নয়ন কর্মকান্ডের পিছনে। ইউনিয়নের প্রতিটি মসজিদ, স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসাসহ বিভিন্ন সড়কে করিয়েছেন বৈদ্যুতিক সোলার স্থাপন।

 

বিগত চার বছরে গ্রমীণ অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের মধ্যে কাবিখা, কাবিটা, অতিদরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচি, টিআর, বিশেষ বরাদ্দের প্রকল্প ও লোকাল গর্ভমেন্ট সার্পোট প্রজেক্ট (এলজি এসপি-৩) প্রকল্প দিয়ে বাস্তবায়ন করে চালিয়ে যাচ্ছেন উন্নয়ন মূলককাজ। এছাড়া নাগরিক সুবিধার আওতায় অসহায়, দরিদ্ররা ভিজিডি কার্ড, বিজিএফ কার্ড, বিধবা ভাতা,বয়স্ক ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা, মাতৃকালীন ভাতা, শিক্ষা উপবৃত্তিসহ সরকরী সকল সুবিধা সাধারণ নাগরিকদের প্রদান করে যাচ্ছেন। ইতিমধ্যে ইউনিয়ন পরিষদের তত্বাবধানে ইউনিয়নের খাদিমপুর নছিব উল্যা উচ্চ বিদ্যালয়ে স্থাপিত হয়ে গালস্ ফ্যাসল্যাটিজ সেন্টার। ইউনিয়ন পরিষদ খোলা হয়েছে ডিজিটাল তথ্য সেন্টার। যা থেকে সব ধরনের ডিজিটাল সুবিধা পাচ্ছেন ইউনিয়নের সাধারণ জনগণ। ইউনিয়ন টিকে মডেল ইউনিয়নের রুপান্তর করতে ইউনিয়ন উপ স্বাস্থ্যকেন্দ্র সহ ইউনিয়নে থাকা প্রতিটি কমিউনিটি ক্লিনিককে উন্নয়ন বরাদ্ধ থেকে করে যাচ্ছেন আধুনিকায়নের কাজ। প্রধানমন্ত্রীর উপহারের বরাদ্ধ থেকে ইউনিয়নের চারজন গৃহহীনদের করে দিয়েছেন বসত ঘর নির্মান।

 

অন্যদিকে, চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়ার একান্ত প্রচেষ্ঠায় প্রধানমন্ত্রীয় শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতায় উমরপুর ইউনিয়নকে শতভাগ বিদ্যুতায়িত করা হয়েছে। ফলে ইউনিয়নের প্রত্যান্ত অঞ্চলও আজ আলোকিত। সরকারের ক্রিড়া উন্নয়নের বিশেষ প্রচেষ্ঠার উদ্যোগ সারাদেশের প্রতিটি উপজেলার শেখ রাসেল মিনি ষ্ট্রেডিয়াম স্থাপনের আওতায় চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়ার একান্ত প্রচেষ্ঠায় ওসমানীনগরে স্থাপিত ষ্টেডিয়ামটি উমরপুর ইউনিয়নে স্থাপনের জন্য ইতিমধ্যে স্থান নির্ধারণসহ সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমোদন প্রাপ্ত হয়েছে বলে জানা গেছে।

 

ইউনিয়নের বাসিন্দা উপজেলা আওয়ামীলীগের যুবক্রিড়া সম্পাদক মুকিদ মিয়াসহ এলাকাবাসী অনেকেই জানান, উমরপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া নিরলস প্রচেষ্ঠায় মাদক, ইভটিজিং, বাল্য বিবাহ, সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদকে জির টলারেন্সে নিয়ে এসেছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আজ দেশে প্রত্যান্ত অঞ্চলের উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া মাধ্যমে উমরপুর ইউনিয়নে অকল্পনীয় উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। নির্বাচনের প্রতিশ্রুতি অনেকটাই বাস্তবায়ন করতে সক্ষম হয়েছেন চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া। উমরপুরকে একটি আলোকিত ও মডেল ইউনিয়নে বাস্তবায়নের জন্য তিনি দিন-রাত কাজ করে যাচ্ছেন।

 

বাংলাদেশ ইউনিয়ন পরিষদ সচিব সমিতির সিলেট জেলা শাখার যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক উমরপুর ইউপি সচিব মারুতি নন্দন দাম বলেন, শুধু অত্র ইউনিয়ন নয় স্থানীয় সরকারের অধিনে সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরের তত্বাবধানে দেশে সবগুলো ইউনিয়নেই ব্যাপক উন্নয়ন মূলক কাজ বাস্তবায়ন হয়েছে। উমরপুর ইউনিয়নের সকল ওয়ার্ড সদস্যদের সম্মন্নয়ে চেয়ারম্যান মহোদয়ের প্রচেষ্ঠায় ইউনিয়নের সাধারণ জনগনের নাগরিক সুবিধা নিশ্চিতসহ শিক্ষা,স্বাস্থ্যসহ উন্নয়ন মূলক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছি। এক্ষেত্রে উপজেলা প্রশাসনসহ সিলেট জেলা প্রসাশক মহোদয়ের সার্বিক দিক নির্দেশনাই সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ডগুলো সাধারণ জনগনের দাঁড়গোড়ায় পৌছে দিতে পারছি।

 

বিগত চার বছরে চেয়্যারম্যান মহোদয়ের সার্বিক প্রচেষ্ঠায় ইউনিয়নে দৃশ্যমান ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। আগামী এক বছরের মধ্যে ইউনিয়নটিকে মডেল ইউনিয়নে রপান্তরের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

 

চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া বলেন, জনগন ভোট দিয়ে আমাকে নির্বাচিত করেছে, তাই জনগনের সেবা করাই আমার কাজ। যতদিন দায়িত্বে থাকবো নিঃস্বার্থ ভাবে মানুষের সেবা করে যাব। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিজাটাল বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্নকে বাস্তবে রুপের ধারাবাহিকতায় উপজেলার সবচেয়ে বড় এবং হাওর বেষ্টিত ইউনিয়নের ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। আমি নির্বাচিত হওয়ায়র পর ইউনিয়ন পরিষদের বরাদ্ধ ছাড়াও ব্যাক্তিগত ভাবে প্রশাসনের দপ্তরে দপ্তরে গিয়ে জনগুরুত্বপূর্ন এলাকায় ব্রিজ নির্মানসহ পাকা রাস্তার সংস্কার কাজের উন্নয়ন সহ নিন্মাঅঞ্চলের গ্রামগুলোর সুষ্ট যাতায়াত ব্যবস্থা নিশ্চিত করেছি।

 

ইউনিয়নের নষ্টাগাংয়ে ব্রিজ নির্মানের জন্য আমি অক্লান্ত পচেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছি। ইউনিয়নের প্রধান সড়ক গোয়ালাবাজার-জগন্নাথপুর সড়কের সংস্কার কাজের জন্য দীর্ঘ দুই বছর পচেষ্ঠার পর সম্প্রতি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কাজ শুরু করলে করোনা ভাইরাসের কারনে কাজটি বন্ধ হয়ে গিয়েছে। ভাইরাসের প্রকোপ কমলে খুব দ্রুতই বেহাল এ সড়কের কাজ শেষ হবে বলে জানান তিনি।


Spread the love

Follow us

আর্কাইভ

January 2022
M T W T F S S
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31