ঢাকায় পাঁচ জন আইসোলেশনে

প্রকাশিত: ২:১২ অপরাহ্ণ, মার্চ ৪, ২০২০

ঢাকায় পাঁচ জন আইসোলেশনে
Spread the love

Views

লন্ডন বাংলা ডেস্কঃঃ

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাস। বিভিন্ন দেশে এর প্রকোপ বাড়ছেই। এখন পর্যন্ত ৩ হাজার ১২৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে। বিশ্বের ৭৬টি দেশ ও অঞ্চলে ৯০ হাজার ৯২৫ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। ৪৮ হাজার মানুষ চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধের অংশ হিসেবে কভিড-১৯ রোগের লক্ষণ নিয়ে ঢাকায় হাসপাতালে ভর্তি হওয়া পাঁচ জনকে ‘আইসোলেশনে’ রাখা হয়েছে। তবে তাদের সবার অবস্থাই ভালো বলে জানিয়েছে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর)।

 

গতকাল মঙ্গলবার নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে সন্দেহভাজন পাঁচ রোগীকে বিচ্ছিন্ন রাখার কথা জানান আইইডিসিআরের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা। এদিকে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার উচ্চ ঝুঁকির মুখে থাকা ২৫টি দেশের জন্য ৩ কোটি ৭০ লাখ ডলার অর্থায়নের অঙ্গীকার করেছে যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক উন্নয়নবিষয়ক সংস্থা ইউএসএআইডি।

 

কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল ও সংক্রামক ব্যাধি হাসপাতালে আইসোলেশন ইউনিট চালু করে আইইডিসিআর। সেখানে সন্দেহভাজন রোগীকে আলাদা রেখে চিকিত্সা দেওয়া হয়। ডা. ফ্লোরা বলেন, ‘অতিরিক্ত সতর্কতা হিসেবে তাদের আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

 

আমাদের হাসপাতালে সব সময়ই আইসোলেশন থাকে। যখনই আমরা রোগী সন্দেহ করি বা যখনই আমাদের কাছে ফোন কল আসে যে তার মধ্যে লক্ষণ-উপসর্গ আছে, আমরা বিলম্ব না করে তাকে আগে হাসপাতালে পাঠাই। নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করার পর তাদের ছাড়ি। জরুরি প্রয়োজনে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিত্সাসেবা নিশ্চিত করতে বেসরকারি হাসপাতালগুলোয় আইসোলেশন ইউনিট চালুর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

 

তবে বিদেশি নাগরিকদের অযথা হয়রানি না করার পরামর্শ দিয়ে ডা. ফ্লোরা বলেন, বিদেশি নাগরিক মানেই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত এমন নয়। দেশে গতকাল মঙ্গলবার পর্যন্ত ৯৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করে কারো শরীরে করোনা ভাইরাস পাওয়া যায়নি। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় পরীক্ষা করা হয়েছে তিনটি নমুনা। ঢাকায় আসা অতিথিদের সম্পর্কে তথ্য দিতে হোটেলগুলোকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

 

কোরিয়া, জাপান ও ইরানে কভিড-১৯ রোগটি ব্যাপক আকারে ছড়িয়ে পড়ায় এই তিন দেশ বাংলাদেশের জন্য উদ্বেগের কারণ উল্লেখ করে আইইডিসিআরের পরিচালক বলেন, ‘আমাদের দেশের সঙ্গে দক্ষিণ কোরিয়ার সম্পর্ক ঘনিষ্ঠ। আমাদের অনেক শিক্ষার্থী সেখানে পড়াশোনা করে, কর্মীরা কাজ করেন। এছাড়া ব্যাবসায়িক সংযোগও রয়েছে। এ কারণে সেসব দেশ থেকে যাত্রীরা এলে আমরা অতিরিক্ত ব্যবস্থা নিচ্ছি।

 

সিঙ্গাপুরে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চিকিত্সাধীন আরো এক বাংলাদেশি সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেছেন। এ নিয়ে সেখানে মোট তিন বাংলাদেশি সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন। আক্রান্ত পাঁচ জনের মধ্যে এখন চিকিত্সাধীন রয়েছেন দুই জন। তাদের অবস্থাও স্থিতিশীল। যে কোনো সময় তারাও হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পাবেন।

ভারত-শ্রীলঙ্কায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঘটলেও দেশবাসীকে আশ্বস্ত করে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, কোনো কারণে এই ভাইরাস বাংলাদেশে ছড়িয়ে পড়লেও তা মোকাবিলায় সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়েছে সরকার। সরকারের প্রস্তুতি তুলে ধরে গতকাল সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘আশপাশের দেশে যেহেতু করোনা ভাইরাস এসে গেছে, বাংলাদেশেও যে আসবে না, এটা নিশ্চিত করে বলা যায় না। তবে আমরা সব সময় প্রস্তুত আছি, আমাদের প্রস্তুতি আরো বৃদ্ধি করছি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নীতিমালা অনুসরণ করে ইতিমধ্যে ট্রিটমেন্ট প্রোটোকল তৈরি করা হয়েছে। ঢাকার কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে বিশেষ ব্যবস্থা করেছি। বক্ষব্যাধি হাসপাতালকেও বিশেষভাবে তৈরি করা হচ্ছে, সেখানে ২০ শয্যার একটি আইসিইউর ব্যবস্থা করছি, ক্রিটিক্যাল রোগী যদি পাওয়া যায়, সেখানে আমরা সেবা দেব।

 

জেলা পর্যায়ের প্রতিটি হাসপাতালে যেন আইসিইউর ব্যবস্থা থাকে, সেই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলেও জানিয়ে তিনি বলেন, ‘প্রতিটি জেলায় আইসোলেশন ওয়ার্ড করেছি।’ জাহিদ মালেক জানান, হাসপাতালে যেসব চিকিত্সক-নার্স কাজ করবেন, তাদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। গাউন, মাস্ক, গ্লাভস যথেষ্ট পরিমাণে দেওয়া হচ্ছে। সব জেলায় জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে একটি এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নেতৃত্বে সব উপজেলায় আরেকটি করে কমিটি করা হয়েছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যেসব বিদেশি অতিথি আসবেন, তাদের ‘বিশেষ ব্যবস্থায়’ রাখা হবে বলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান।

 

নওগাঁ হাসপাতালে ভর্তি এক ছাত্র

 

সিঙ্গাপুরফেরত এক ছাত্রকে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে নওগাঁ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার সিঙ্গাপুর থেকে দেশে এসে হঠাত্ জ্বরে আক্রান্ত হলে সোমবার সকালে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিত্সকেরা তার জ্বরের কারণ অনুসন্ধানে বিশেষ বিভাগে ভর্তি করেছেন।

 

চীনের বাইরেই দ্রুত ছড়াচ্ছে

 

করোনা ভাইরাস এখন চীনের বাইরেই দ্রুত ছড়াচ্ছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান তেদ্রোস গেব্রিয়েসাস জানিয়েছেন, গত ২৪ ঘণ্টায় চীনে যত নতুন রোগীর সন্ধান পাওয়া গেছে, চীনের বাইরে পাওয়া গেছে তার আট গুণ বেশি। বিশ্ব জুড়ে এ ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের ঝুঁকি তৈরি হওয়ায় গত সপ্তাহেই সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। সোমবার জেনেভায় এক সংবাদ সম্মেলনে তেদ্রোস গেব্রিয়েসাস বলেন, এই মুহূর্তে দক্ষিণ কোরিয়া, ইতালি, ইরান ও জাপানের পরিস্থিতি সবচেয়ে উদ্বেগজনক।

 

তবে দক্ষিণ কোরিয়া নিবিড় নজরদারি চালু করার পর সেখানে নিয়ন্ত্রণের আশা তৈরি হচ্ছে। চীনের বাইরে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু ঘটেছে ইরানে। সোমবার সেখানে মৃতের সংখ্যা ৫৪ থেকে বেড়ে হয়েছে ৬৬। যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ার পাশাপাশি মৃতের সংখ্যাও বেড়েছে। দেশটির সিয়াটল শহরে আরো চার জনের মৃত্যুর ঘটনায় মৃতের সংখ্যা ছয়ে দাঁড়িয়েছে। ইতালিতে মৃতের সংখ্যা ৩৪ থেকে বেড়ে হয়েছে ৫২।

ইরানের পার্লামেন্ট সদস্যদের ৮ শতাংশই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত বলে দেশটির ডেপুটি স্পিকার আব্দুল রেজা মিসরি জানিয়েছেন। মঙ্গলবার তেহরানে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘মজলিস’ বা পার্লামেন্টের ২৯০ সদস্যের মধ্যে ২৩ জনের এই ভাইরাস সংক্রমণ ধরা পড়েছে। ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আল খামেনিকে লেখা পার্লামেন্টের স্পিকার আলী লারিজানির একটি চিঠিতে এই চিত্র উঠে এসেছে বলে জানান তিনি। ওই চিঠিতে পার্লামেন্ট সদস্যদের প্রতি জনসাধারণের সংস্পর্শে না যাওয়ারও আহ্বান জানানো হয়েছে।

করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশসহ ২৫ দেশে অর্থায়ন করছে যুক্তরাষ্ট্র

করোনা ভাইরাস আক্রান্ত বা ছড়িয়ে পড়ার উচ্চ ঝুঁকির মুখে থাকা বাংলাদেশসহ ২৫টি দেশে ৩ কোটি ৭০ লাখ ডলার অর্থায়নের ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র সরকার।


Spread the love

Follow us

আর্কাইভ

January 2022
M T W T F S S
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31