ইতালীতে বেসামাল প্রাণঘাতী করোনা:২৪ ঘন্টায় ১৬৮ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত: ৩:১৮ অপরাহ্ণ, মার্চ ১১, ২০২০

ইতালীতে বেসামাল প্রাণঘাতী করোনা:২৪ ঘন্টায় ১৬৮ জনের মৃত্যু
১৭৯ Views

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃঃ

 

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে ইতালির পরিস্থিতি ক্রমেই খারাপের দিকে যাচ্ছে। দেশটিতে এই ভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ১৬৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৩১ জনে। দেশটিতে একদিনে এটিই সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড।কাতারভিত্তিরক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা জানিয়েছে, ইতালিতে নতুন করে আরও প্রায় ১ হাজার জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১০ হাজার ছাড়ালো।পরিস্থিতি এখন এতটাই আয়ত্ত্বের বাইরে চলে গেছে যে, সরকার সংক্রমণ ঠেকাতে পুরো দেশজুড়ে কঠোর বিধিনিষেধ জারি করেছে, নিষিদ্ধ করা হয়েছে জনসমাগম। জীবিকা নির্বাহ বা পারিবারিক জরুরি প্রয়োজন ছাড়া সব ধরণের ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, দেশটির প্রধানমন্ত্রী জিউসেপ কোঁতে এ ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, করোনাভাইরাসের কারণে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে থাকা মানুষদের প্রাণ বাঁচাতেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।যারা এসব বিধিনিষেধ উপেক্ষা করবেন, তাদের জেল-জরিমানা পর্যন্ত হতে পারে। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ইতালি জুড়ে মানুষের দৈনন্দিন জীবনযাত্রায় এরকম ব্যাপক ব্যাঘাত আর দেখা যায়নি।পরিস্থিতি কতটা গুরুতর তা বর্ণনা করতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ইতালির জন্য এটি হয়তো অন্ধকারতম সময়, কিন্ত সঠিক আত্মত্যাগের মাধ্যমে ইতালিয়ানরা নিজেদের ভবিষ্যৎ নিজেদের হাতে নিতে পারবে।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যমতে, প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে বিশ্বব্যাপী ১১৮ টি দেশে এখন পর্যন্ত ১ লাখ ১৮ হাজার ৯০৩ জন আক্রান্ত হয়েছে এবং মারা গেছে ৪ হাজার ২শ’ ৬৯ জন। বিশ্বের ১০৯টি দেশ ও অঞ্চলে এই ভাইরাসের প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছে।শুধুমাত্র চীনের মূল ভূখণ্ডেই করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৮০ হাজার ৭৫৭ এবং মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ১৩৬ জনের। চীনের পর করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি দক্ষিণ কোরিয়ায়। দেশটিতে এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৭ হাজার ৫১৩ এবং মৃত্যু হয়েছে ৫৪ জনের।এর মধ্যে ৬ হাজার ৪৫ জনের অবস্থা ঝুঁকিপূর্ণ বা আশঙ্কাজনক। যা মোট আক্রান্তের ১২ শতাংশ।

Spread the love

Follow us

আর্কাইভ

April 2024
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
2930